সৌদি আরব রমজান মাসের ক্যালেন্ডার ২০২৩

সৌদি আরব দেশটি বিশ্বের মুসলমান সমাজের কাছে একটি গুরুত্বপূর্ণ দেশি হিসেবে বিবেচনা হয় কারণ এই সৌদি আরব হল মুসলিম ধর্মের অর্থাৎ ইসলাম ধর্মের মাতৃভূমি বলা চলে। কারণ ইসলাম ধর্মটি সৌদি আরবের মক্কা নগরী থেকে প্রথম আবির্ভাব ঘটে হযরত মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু ওয়া সাল্লাম এর হাত ধরে। সৌদি আরবের মক্কা নগরীতে মহানবী হযরত মুহাম্মদ এর জন্মস্থান এবং এখানে তিনি বেড়ে উঠেছেন আর এই শহরের অর্থাৎ মক্কা নগরীর অদূরে হীরা পর্বতের গুহায় হযরত মুহাম্মদ এর উপর কোরআন নাজিল হয়।

তাই বলা হয় মুসলমানদের পরিচিত এবং খুব সম্মানের জায়গা হৃদয়ের জায়গা সৌদি আরব। এই সৌদি আরব এর সাথে বাংলাদেশের দীর্ঘদিনের সম্পর্ক অর্থাৎ বাংলাদেশের জন্মলগ্ন পর থেকে সৌদি আরবের সাথে সম্পর্ক গড়ে ওঠে। আর সৌদি আরব যেহেতু মুসলমানদের জন্য পবিত্র দেশ এই কারণে অনেক শ্রমিক অর্থাৎ বাংলাদেশ থেকে যখন সৌদি আরব শ্রমিক নেয় তখন বাংলাদেশের শ্রমিকরা সৌদি আরবে যেতে অনেক আগ্রহী হয়ে ওঠে। কারণ হিসেবে আমাদের দেশের জনগণ দেখে সৌদি আরব যেহেতু মুসলিমদের জন্য পবিত্র দেশ আর এই পবিত্র দেশে যেতে কারনা মন চায় সে হোক না শ্রমিকের কাজ করতে ঘুরতে হজ করতে অথবা বেড়ানোর জন্য। কারণ যেহেতু সৌদি আরব পবিত্র দেশ হিসেবে বিবেচিত হয় সে কারণে সকলেই সে দেশের প্রতি সামান্য হলেও একটু আলাদা নজর দিয়ে থাকেন। আর এ কারণে সৌদি আরবে বাংলাদেশ বিশ্বের অনেক প্রবাসী বাঙালিরা তাদের কাজের জন্য বসবাস করে থাকেন।

বাংলাদেশের মাটি ছেড়ে তাদের আত্মীয় পরিজন ছেড়ে অনেক দূরে বসবাস করে থাকেন শুধুমাত্র অর্থ উপার্জন করার তাগিদে। অর্থ উপার্জন করার পর তারা সেই অর্থ দেশে পাঠালে বাংলাদেশও একটি লাভবান হয়ে থাকে রেমিটেন্স পেয়ে । কিন্তু শুধু অর্থ উপার্জন করতে হবে সারা জীবনে এটি নয় যেহেতু বেঁচে থাকার জন্য অবশ্যই মানুষকে রোজগার করতে হবে কিন্তু রিজিকের মালিকও আল্লাহ তায়ালা। আল্লাহতালা রিজিকে যতটুকুন আয় রোজগার লিখে রেখেছেন ততটুকুনি হবে কিন্তু আমাদের অবশ্যই ধর্ম কর্ম করে যেতে হবে একবারে দিল খোলসা করে। তাই পৃথিবীর যে প্রান্তেই থাকি না কেন বাংলার মুসলমান হোক আর বিশ্বের মুসলমান হোক সকল মুসলমানই পবিত্র রমজান মাসের জন্য অধীর আগ্রহে চেয়ে থাকেন । কারণ এই রমজান মাসে রোজা রাখার জন্য বাংলাদেশী প্রবাসীরা অর্থাৎ সৌদি আরব প্রবাসী বাঙ্গালীদের একটু সমস্যায় পড়তে হয়।

 

সৌদি আরব জেদ্দা

সৌদি আরব দাম্মাম

সৌদি আরব রিয়াদ

সৌদি আরব মক্কা

কারণ সৌদি আরব ইসলামের মাতৃভূমি হলেও কি হবে সেখানে ইফতার এবং সেহেরির যে সময়সূচী প্রকাশ করে সে সময়সূচী আরবি ভাষায় প্রকাশ করে। কিন্তু বাংলাদেশের জনগণ অর্থাৎ প্রবাসী বাংলাদেশীরা সেই আরবি ভাষা না বোঝার কারণে তাদেরকে সমস্যায় পড়তে হয়। তাই এ সকল প্রবাসী বাংলাদেশীদের জন্য আমরা আমাদের এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে তাদের অর্থাৎ সৌদি আরবের স্থানীয় সময় অনুযায়ী প্রকাশিত সেহরি এবং ইফতারের সময়সূচি আমরা বাংলায় রূপান্তর করে এ সকল বাংলা শ্রমিক ভাইদের মধ্যে দিতে পারব তাই তারা অবশ্যই আমাদের ওয়েবসাইট থেকে ভিজিট করতে হবে এবং আমাদের সঙ্গে থাকতে হবে সব সময়।

তাহলে তারা বিদেশের মাটিতে থেকেও বাংলা ভাষায় দেখে নিতে পারবে সেই খানকার স্থানীয় সময় অনুযায়ী পবিত্র মাহে রমজান মাসের সেহরির এবং ইফতারের সময়সূচী এর তালিকা। আর এই সেহরি এবং ইফতারের তালিকাটি পাওয়ার জন্য আপনাদেরকে অবশ্যই প্রথম থেকে শেষ পর্যন্ত আমাদের এই পোস্টে যত্ন সহকারে পড়ে যেতে হবে। তাই আপনাদের চিন্তা বা টেনশনের কোন কারণ নাই আপনারা আমাদের ওয়েবসাইটে আসবেন এ সকল সেহরি ইফতারের সময়সূচি সহ অন্যান্য যে কোন জিনিস অর্থাৎ ইসলামের যেকোনো তথ্য যদি আপনাদের জানতে হয় সেগুলি দেখবেন নিবেন এবং প্রয়োজনে ডাউনলোড করে নিবেন কারণ আমাদের এই ওয়েবসাইট থেকে প্রশ্নের উত্তরগুলি ডাউনলোড করে নেওয়া যায়। তাহলে সর্বপ্রথম দেখেনি সেই প্রশ্নের অর্থাৎ সেহরি এবং ইফতারের সময়সূচির তালিকা।